দেখতে খুব ছোট হলেও অভিনয়কে ছোট করে দেখার সুযোগ এখন পর্যন্ত কারও হয়নি। এমনই সুযোগ্য শিশুশিল্পী ছিলেন প্রার্থনা ফারদিন দিঘী। তবে অভিনয় জগতে তিনি দিঘী নামেই অধিক পরিচিত। পাঠক ও দর্শকদের মন থেকে এখনও সেই নাম মুছে যায়নি। ’বাবা জানো...আমাদের টিয়ে পাখিটা না আজ আমার নাম ধরে ডেকেছে’- বিজ্ঞাপনচিত্রের এমন সংলাপটি ছিল দিঘীর। এ বিজ্ঞাপনচিত্রটি প্রাচার হওয়ার পরপরই দর্শকদের মনের মাঝে দারুন জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছিল সে।
২০০৪ সালের কথা এটি। এরপর শিশু অভিনয়শিল্পী হিসেবে সিনেমাপ্রেমী দর্শকের মনে অল্প সময়ে জায়গা হয়ে যায় চিত্রনায়িকা প্রয়াত দোয়েল ও চিত্রনায়ক সুব্রতর একমাত্র কন্যা দিঘীর। এক বিজ্ঞাপনচিত্র দিয়েই সেসময় সবাইকে মাত করে দেয়ার পর শিশুশিল্পী হিসেবে চলচ্চিত্রেও অভিষেক হয় এই মডেলের। এরপর তার অভিনয়ে একের পর এক সিনেমাও মুক্তি পায়।

দিঘীর পুরো নাম প্রার্থনা ফারদিন দিঘী। ২০০৬ সালে মুক্তি পায় তার প্রথম সিনেমা ’কাবুলিওয়ালা’।

পড়াশুনার কারণে কোনো সিনেমায় আর কাজ করা হয়ে ওঠেনি। এরইমধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে নতুন সিনেমার প্রস্তাব পাচ্ছেন দিঘী। তবে তিনি কবে চলচ্চিত্রে ফিরবেন জানতে চাইলে জবাবে বলেন, আবারো সিনেমায় ফেরার ইচ্ছে আছে। বলতে গেলে প্রায় প্রতিদিনই সিনেমায় অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব পাচ্ছি। তবে এইচএসসি শেষ করে সিনেমায় ফিরতে চাই। কি ধরনের গল্পে কাজ করার ইচ্ছে বেশি? জবাবে দিঘী বলেন, শুধু রোমান্টিক কিংবা অ্যাকশন গল্পের সিনেমা নয়, সব ধরনের কাহিনীর সিনেমায় সব ধরনের চরিত্রে কাজ করার ইচ্ছে আছে। আমার আলাদা কোনো পছন্দ নেই। নিজেকে বিভিন্ন চরিত্রে উপস্থাপন করার ইচ্ছেটাই বেশি। বর্তমানে শাকিব খানের পর আরিফিন শুভ, ইমন, নিরব, সিয়াম, রোশানসহ অনেকে নায়ক হিসেবে কাজ করছেন। কাকে দিঘী তার বিপরীতে হিরো হিসেবে দেখতে চান? জবাবে এই তারকা বলেন, যখন যার জনপ্রিয়তা বেশি থাকবে তখন তার বিপরীতে কাজ করতে চাই আমি।

কলেজের পার্ট শেষ করে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে উচ্চশিক্ষা নেয়ার ইচ্ছে আছে বলেও জানান তিনি। পড়াশুনার বাইরে বিভিন্ন জনপ্রিয় গানের সঙ্গে ভিডিও প্ল্যাটফর্ম ’টিকটক’ করতেও দেখা যায় তাকে। অনেকে এজন্য তাকে টিকটক কুইন নামের উপাধিও দিয়েছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে দিঘী বলেন, আমি জানতাম না টিকটক কুইন হয়ে গেছি। এটি একটি মজার অ্যাপ। টোটালি টাইম পাস করার জন্য কাজটি করা হয় আমার।

এর আগে বাংলা জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর বাবা সুব্রত বড়ুয়া এক শোতে জানিয়েছিলেন, দিঘীর জন্য প্রায় সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব আসছে। কিন্তু ভালো না লাগলে তা সাথে সাথে প্রত্যাখ্যান করে দেওয়া হচ্ছে। এদিকে বাংলা বড় পর্দায় দিঘীর যাত্রা শুরু হয় কাজী হায়াৎ পরিচালিত ’কাবুলিওয়ালা’ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে। এ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি ব্যপক সাড়া পেয়েছিলেন।