রাজধানীর চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র কাওসার আহমেদের যমজ দুই শিশু সন্তানের দায়িত্ব নিয়েছেন হাবিবুর রহমান জুয়েল। জুয়েলও ঢাকা বিশ্বিবদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক।






কাওসারের দুই সন্তানের দায়িত্ব নেয়ার পর হাবিবুর রহমান জুয়েল ফেসবুকে লিখেন: চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডে নিহত ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয়ের ছোট ভাই পবিত্র কোরআনে হাফেজ কাওসারের দুটি জমজ শিশু সন্তানের সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিতে পেরে বেশ শান্তি অনুভব করছি।

চকবাজার চুড়িহাট্টা এলাকার ফার্মেসি ব্যবসায়ী ছিলেন কাওসার আহমেদ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২২তম ব্যাচের ছাত্র তিনি। পড়াশুনার পাশাপাশি চকবাজারের মদিনা মেডিকেল হল ক্লিনিক চালাতেন কাওসার। ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডে দোকানেই পুড়ে মারা যান এ তরুণ। পুড়ে যায় তার ফার্মেসিও।

স্ত্রী আর ছোট্ট দুই যমজ ছেলে-মেয়ে নিয়ে ছিল তাদের সংসার।







গত সপ্তাহে চ্যানেল আইয়ের উদ্যোক্তা অনুষ্ঠানে মাঝারি খাতের সফল তরুণ উদ্যোক্তা হাবিবুর রহমান জুয়েলের সাফল্যগাঁথা শীর্ষক একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সেখানে দেখানো হয় প্লাস্টিক দূষণ কমিয়ে পরিবেশকে সুন্দর করে এগিয়ে যাচ্ছেন ১০০ ভাগ রপ্তানিমুখী এসএমই উদ্যোক্তা হয়ে।