রেস্টুরেন্টে এসেছিলেন এক কাস্টমার। তার খাবারের মেন্যুতে বিশেষ কিছু ছিল না। মাত্র দুই গ্লাস পানির অর্ডার দিলেন। রেস্টুরেন্ট কর্মচারীর পরিবেশন করা ওই দুই গ্লাস পানি বোধহয় কাস্টমারের কলিজা ঠাণ্ডা করে দিয়েছিল। সুস্বাদু পানির জন্য ধন্যবাদ-নোট দিয়ে পরিবেশকের হাতে ধরিয়ে দিলেন নগদ ১০ হাজার মার্কিন ডলার, যা বাংলাদেশি টাকায় সাড়ে ৮ লাখ।
শনিবার এমনই ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনার গ্রিনভিলের সাপ ডগস রেস্টুরেন্টে। ভাগ্যবান ওই পরিবেশকের নাম অ্যালাইনা কাস্টার। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ফক্স নিউজের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানিয়েছে।
একসঙ্গে এতগুলো টাকা পেয়ে দারুণ বিস্মিত কাস্টার। তিনি বলেন, ’আমি প্রথমে বিশ্বাসই করতে পারিনি যে, আমি সবকিছু ঠিক দেখছি কি না। একপর্যায়ে আমি নোটগুলো হাতে উঠিয়ে নিলাম এবং এর সবগুলোই ছিল ১০০ টাকার নোট। আমারতো রীতিমতো উত্তেজনায় শরীর কাঁপছিল এবং নিজেকে বারবার জিজ্ঞেস করছিলাম কী ঘটতে যাচ্ছে। এমনকি আমার মনে হচ্ছিল কেউ যেন আমার সঙ্গে মজা করছে।’
এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই কাস্টমার কোনো সাধারণ ব্যক্তি ছিলেন না। তিনি একজন ইউটিউব ব্যক্তিত্ব। তার নাম বিস্ট। ইউটিউবে তার একটি চ্যানেলে ৮৯ লাখ সাবস্ক্রাইবার আছে।
বিস্ট যখন টাকাগুলো দিয়ে চলে যাচ্ছিলেন, তখন এ ঘটনা ক্যামেরাবন্দি করেন দুই ব্যক্তি। এত টাকা একসঙ্গে পেয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে পড়ে যান কাস্টার। বিষয়টি জানতে পেরে বিস্ট আবার রেস্টুরেন্টে ফিরে আসেন। এ সময় তিনি কাস্টারকে বলেন, ’টাকাগুলো নিয়ে নিন। এগুলো আপনার।’
তবে একসঙ্গে এত টাকা পেয়ে কিছুতেই অপচয় করতে চান না কাস্টার। তিনি বলেন, ’টাকাগুলো পেয়ে আমি ধন্য। তবে এ টাকা আমি নিজের জন্য ব্যয় করবো না। এ রেস্টুরেন্টে আমার সঙ্গে অনেক কিশোর-কিশোরী কাজ করে, যারা কলেজ থেকে ঝরে পড়েছে।’
’আমি এ টাকাগুলো তাদের পেছনে খরচ করতে চাই। আমরা সবাই ভাগ করে নেব। এতে করে সবাই উপকৃত হবে।’
রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ এ সংক্রান্ত একটি ছবি সোমবার তাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করেছে। আর এতেই প্রশংসায় ভাসছেন কাস্টমার ও ইউটিউবার বিস্ট।