বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত শিক্ষাখাতে বাংলাদেশও বর্তমান সময়ে এগিয়ে যাচ্ছে উন্নয়নের দিকে। তবে সম্প্রতি যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি সংস্থা বিশ্ব সেরা বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর তালিকা প্রকাশ করেছে। এই তালিকায় স্থান পেয়েছে বাংলাদেশের তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়। এই তিনটি এ বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে- ঢাবি, বাকৃবি ও বুয়েট।
বিশ্বসেরার তালিকায় বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্থান না পাওয়া নিয়ে বিভিন্ন সময় নানা সমালোচনা হয়। তবে, এবার যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা সাময়িকী টাইমস হায়ার এডুকেশনের (টিএইচই) র‌্যাঙ্কিংয়ে বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তালিকায় স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশের তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়। এ তিনটি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি), বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। টাইম হায়ার এডুকেশনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে এ তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে ৮০১ থেকে ১০০০ এর মধ্যে। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় আছে ১০০১ থেকে ১২০০ এর মধ্যে। আর বুয়েটের অবস্থান ১২০০ এর পর। বিভিন্ন মূল্যায়ন সূচকে মান যাচাই-বাছাই করে এ তালিকা করেছে টাইমস হায়ার এডুকেশন। শিক্ষাদান, গবেষণা, গবেষণা-উদ্ধৃতি, আন্তর্জাতিক দৃষ্টিভঙ্গি এবং শিল্পের সঙ্গে জ্ঞানের বিনিময়ের ওপর ভিত্তি করে তালিকাটি করা হয়েছে। টাইমসের তালিকায় এবারও এক নম্বরে আছে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, দ্বিতীয় যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি ও হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি। শীর্ষ দশে আরও রয়েছে যথাক্রমে- যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি, যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব ক্যামব্রিজ, যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি), প্রিন্সটোন ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, বার্কলে, ইয়েল ইউনিভার্সিটি ও দ্যা ইউনিভার্সিটি অব সিকাগো।

দেশ ও জাতির উন্নয়নের জন্য শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। বাংলায় একটি বহুল প্রচলিত প্রবাদ রয়েছে "শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড"। এক্ষেত্রে শিক্ষা একান্ত জরুরি। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের বর্তমান সরকার দেশের শিক্ষার হার বৃদ্ধি সহ শিক্ষার মান বৃদ্ধি জন্য আপ্রান ভাবে কাজ করছে। ইতিমধ্যে এই বিষয়ে সরকার গ্রহন করেছে নানা ধরনের পদক্ষেপ।